আলুর বাজার লাগামহীন সরকারের নির্ধারিত দামে বিক্রি হচ্ছে না আলু

14

নিজস্ব প্রতিবেদক : কারওয়ান বাজার থেকে হাতিরপুল বাজারের দূরত্ব সর্বোচ্চ আধা কিলোমিটার। এ আধা কিলোমিটার দূরত্বে নিত্যপ্রয়োজনীয় বিভিন্ন খাদ্যসামগ্রীর কেজিতে দামের হেরফের ১০-১২ টাকা।

সম্প্রতি সরকার প্রতিকেজি আলুর দাম ৩০ টাকা নির্ধারণ করে দিলেও এ দামে কোথাও আলু বিক্রি হচ্ছে না। কারওয়ান বাজারে প্রকাশ্যেই প্রতিকেজি আলু ৪০-৪২ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। হাতিরপুল বাজারে একই আলু বিক্রি হচ্ছে ৫০-৫২ টাকায়। আর পাড়া মহল্লায় ভ্যানে কোথাও কোথাও তা ৫৫-৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে। সাদা আলুর চেয়ে লাল আলুর দাম তুলনামূলকভাবে দুই চার টাকা বেশি।

রোববার (১৮ অক্টোবর) রাজধানীর কারওয়ান বাজার, হাতিরপুল ও পাড়া মহল্লার দোকানপাট ঘুরে দেখা গেছে, সরকারিভাবে আলুর কেজি ৩০ টাকা বেঁধে দিলেও কোথাও এ দামে বিক্রি হচ্ছে না।

সরেজমিনে কারওয়ান বাজার ঘুরে দেখা গেছে, বিক্রেতারা মূল্য তালিকায় প্রতিকেজি আলু ৪০-৪২ টাকা লিখে রেখেছেন।

আবুল কাশেম নামের এক ব্যবসায়ী সরকার নির্ধারিত ৩০ টাকা কেজিতে আলু বিক্রি কেন করছেন না জানতে চাইলে বলেন, সরকার তো অর্ডার কইরাই খালাস। কোল্ড স্টোরেজ থেকে আলু কিনে বাজারে আসা পর্যন্ত ৩০ টাকার বেশি খরচ হয়। সে ক্ষেত্রে ৩০ টাকা কেজিতে আলু বিক্রি করলে লাভ তো দূরের কথা পুঁজি ভেঙে খেতে হবে।

হাতিরপুল বাজারের এক আলু বিক্রেতার কাছে কারওয়ান বাজার থেকে অল্প দূরত্বের এ মার্কেটে কেজিপ্রতি ১০-১২ টাকা বেশি কেন এমন প্রশ্নে বলেন, তারা খুচরা ক্রেতাদের কাছে বিক্রি করেন। আলুর কোয়ালিটি ভালো তাই দাম একটু বেশি।

রাজধানীর আজিমপুরের মুদি দোকানি আবদুর রহিম অন্যান্য পণ্যের সঙ্গে নিয়মিত আলু বিক্রি করতেন। গত কয়েকদিন আলুর দাম বেশি হওয়ায় আপাতত আলু বিক্রি বন্ধ রেখেছেন। পাড়া মহল্লার দোকানে প্রতিকেজি ৫৫-৬০ টাকা দরে বিক্রি হচ্ছে বলে জানান তিনি।