এলপি গ্যাসের মূল্য নির্ধারণ করলো সরকার

44

নিজস্ব প্রতিবেদকঃ ভোক্তা পর্যায়ে লিকুইফাইড পেট্রোলিয়াম গ্যাসের (এলপিজি) মূল্য নির্ধারণ করে দিয়েছে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি)।

ভোক্তা পর্যায়ে সরকারি এলপিজি গ্যাসের প্রতি ১২.৫ কেজির সিলিন্ডারের দাম হবে ৫৯১ টাকা। আর বেসরকারি সমান আয়তনের সিলিন্ডারের দাম হবে ৯৭৫ টাকা। ১২ এপ্রিল থেকে এই আদেশ কার্যকর হবে। তবে আন্তর্জাতিক বাজারের সঙ্গে সমন্বয় করে প্রতিমাসেই এই দাম পরিবর্তিত হতে পারে।

সোমবার (১২ এপ্রিল) জুম মিটিংয়ে নতুন এ দামের কথা জানান সংস্থাটির চেয়ারম্যান মো. আব্দুল জলিল।

রেগুলেটরি কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, নির্ধারিত এ মূল্যের বেশি দামে কেউ বিক্রি করলে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

এতোদিন একেক স্থানে এলপিজি গ্যাসে দাম একেক রকম নেওয়া হতো। চাহিদা সংকটের সময় বাড়তি দাম আদায়ের অভিযোগও পাওয়া যেতো। এমন প্রেক্ষাপটে ১৪ জানুয়ারি এলপি গ্যাসের দাম নির্ধারণের জন্য বিক্রয়কারী কোম্পানিগুলোকে নিয়ে গণশুনানি করে বিইআরসি।

সিলিন্ডারের মান নিশ্চিত করার বিষয়ে কমিশনের চেয়ারম্যান বলেন, সিলিন্ডারের মানের বিষয়ে আরও কিছু সংস্থার দায়িত্ব রয়েছে। তারপরেও নিম্নমানের হয়ে থাকলে সেসব বিষয়ে সংশ্লিষ্ট দপ্তর ব্যবস্থা নেবে।

কমিশনের নিয়ম অনুযায়ী, গণশুনানির ৯০ দিনের মধ্যে আদেশ দেওয়ার নিয়ম। সেই হিসাবে ১৪ এপ্রিল সেই সময় শেষ হচ্ছে। তার আগেই কমিশন থেকে দাম নির্ধারণের ঘোষণা এলো।

প্রসঙ্গত, সাধারণত সৌদি কন্ট্রাক্ট প্রাইস (সিপি) অনুযায়ী দেশে এলপিজি গ্যাসের দাম নির্ধারিত হয়। সেই সঙ্গে এলসি মার্জিন, জাহাজ ভাড়া, পরিবহন ব্যয়, ডিলারের লভ্যাংশ, উদ্যোক্তার মুনাফা বিবেচনায় নিয়ে বাজার দর নির্ধারণ করা হয়।