করোনা প্রতিরোধে কার্যকর উপায় জানালেন বিশেষজ্ঞ

20

অনলাইন ডেস্ক: ‘এই করোনাকালে গরম পানীয় পান করা আপনার গলার জন্য ভালো। কিন্তু করোনাভাইরাস আপনার নাকের পারানসাল সাইনাসের পেছনে তিন থেকে চার দিন লুকিয়ে থাকতে পারে। গরম পানীয় সেখানে পৌঁছে না। চার থেকে পাঁচ দিন পর এই ভাইরাসটি সাইনাসের পেছন থেকে ফুসফুসে পৌঁছে। তখন আপনার শ্বাস নিতে সমস্যা হয়। এ জন্যই ভাপ নেওয়া খুব জরুরি। ভাপ আপনার পারানসাল সাইনাসের পেছনে পৌঁছতে সক্ষম। আপনাকে ভাপ নিয়ে নাকের সাইনাসের পেছনে লুকানো ভাইরাসকে হত্যা করতে হবে।;

‘৫০ ডিগ্রি সেলসিয়াস তাপমাত্রায় এই ভাইরাসটি অক্ষম হয়ে যায় বা পক্ষাঘাতগ্রস্ত হয়। ৬০ ডিগ্রি সেলসিয়াসে এই ভাইরাস এতটাই দুর্বল হয়ে যায় যে মানবদেহের যেকোনো প্রতিরোধ ক্ষমতা এটির বিরুদ্ধে লড়াই করতে পারে। ৭০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেডে এই ভাইরাস পুরোপুরি মারা যায়। এ কাজটিই বাষ্প বা ভাপ করে থাকে। পুরো জনসাধারণ ও স্বাস্থ্য বিভাগ এটি জানে। তবে সবাই এই মহামারির সুবিধা নিতে চায়। এ জন্যই তারা এই কার্যকর তথ্যটি প্রকাশ্যে আনে না।;

‘যারা বাড়িতে থাকে, তাদের দিনের মধ্যে অন্তত একবার ভাপ নেওয়া উচিত। বাইরে গেলে বা কাঁচাবাজারে গেলে দিনে দুবার করে ভাপ নিতে হবে। যে বা যারা জনসমাগমে যায় বা মানুষের সঙ্গে দেখা-সাক্ষাৎ করে বা অফিসে যায়, তাদের উচিত দিনে তিনবার ভাপ নেওয়া।;

বাষ্প সপ্তাহ

চিকিৎসকদের মতে, ‘নাক এবং মুখ দিয়ে ভাপ নিলেই করোনাভাইরাস নির্মূল করা সম্ভব। যদি সব মানুষ এক সপ্তাহ ধরে স্টিম ড্রাইভ চালানো শুরু করে, তবে মহামারিটি শিগগিরই নিঃশেষ হয়ে যাবে।;

‘সুতরাং এ ক্ষেত্রে একটি পরামর্শ হলো, এখন থেকে এক সপ্তাহের জন্য সকাল এবং সন্ধ্যা দুই বেলা মাত্র ৫ মিনিট করে ভাপ নিতে হবে। আমরা সবাই যদি এই অনুশীলনটি এক সপ্তাহের জন্য করি, তবে এই অতি মারি কভিড-১৯ মুছে ফেলা সম্ভব হবে। এই অনুশীলনের কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই এবং কোনো অর্থও ব্যয় করতে হয় না।;

‘সুতরাং দয়া করে এই বার্তাটি আপনার সব প্রিয়জন, আত্মীয়-স্বজন, বন্ধু এবং প্রতিবেশীদের কাছে পৌঁছে দিন। যাতে করে আমরা সবাই করোনাভাইরাসটিকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে পারি। এবং সবাই একসঙ্গে অবাধে এই সুন্দর পৃথিবীতে ঘুরে বেড়াতে পারি। ধন্যবাদ।;