কুষ্টিয়ায় শিশু সন্তানকে হত্যা পর মায়ের আত্মহত্যা

175
অটোরিকশাচালক রতন ও তার নিহত স্ত্রী-সন্তান, ছবি: জনবাণী

নিজস্ব প্রতিবেদক,কুষ্টিয়া : কুষ্টিয়া শহরে মা ও শিশুসন্তানের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। বুধবার (২২ সেপ্টেম্বর) সকাল ১০টার দিকে কুষ্টিয়া পৌরসভার ২ নম্বর ওয়ার্ডের থানাপাড়া এলাকার গড়াই নদ সংলগ্ন বাঁধপাড়া থেকে মরদেহ দুটি উদ্ধার করা হয়।

নিহতরা হলেন- আকলিমা খাতুন (৩২) ও তার ৯ মাস বয়সী ছেলে জীম। আকলিমা বাঁধপাড়া এলাকার মাজেদ মোল্লার মেয়ে ও একই এলাকার অটোরিকশাচালক রতনের স্ত্রী। আকলিমা দুই মেয়ে ও এক ছেলের জননী। তিনি মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন বলে এলাকাবাসী জানান।

নিহতের পরিবার, পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গেছে, বুধবার ভোরের কোনো এক সময় বাড়ির সবার অজান্তেই শিশুটিকে হত্যা করে মা। তারপর ওড়না দিয়ে ঘরের আড়ার সঙ্গে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেন। সকালে ঘুম থেকে উঠার পর বিষয়টি জানাজানি হয়। পরে কুষ্টিয়া মডেল থানা পুলিশ আকলিমা ও তার ছেলের মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠায়।

নিহতের স্বামী রতন জনবাণীকে বলেন, আমার স্ত্রী আকলিমা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিল। কয়েকদিন আগে সে তার বাবার বাড়িতে যায়। সেখানে শ্বাসরোধে শিশুকে হত্যার পর নিজে ফাঁস দিয়ে আত্মহত্যা করেছে। এ বিষয়ে আমাদের কোনো অভিযোগ নেই।

স্থানীয় রেহেনা খাতুন বলেন, দীর্ঘ দিন ধরে আকলিমা মানসিক ভারসাম্যহীন ছিলেন। আমাদের ধারণা, প্রথমে শিশুকে শ্বাসরোধ করে হত্যা করে। পরে আকলিমা নিজে আত্মহত্যা করে।

কুষ্টিয়া মডেল থানা অফিসার ইনচার্জ সাব্বিরুল ইসলাম ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে জনবাণীকে জানান, থানাপাড়া বাঁধের একটি বাড়ি থেকে মা ও শিশু সন্তানের মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। আকলিমা মানসিক রোগী ছিল। প্রথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে আত্মহত্যা করেছে। তবে তদন্ত প্রতিবেদন পেলে সবকিছু নিশ্চিত হওয়া যাবে।