কোরবানি নিয়ে ফেসবুকে বিরূপ মন্তব্য করায় শিক্ষক গ্রেফতার

22

লালমনিরহাট প্রতিনিধি: ‘ঈদুল আযহার কোরবানীকে নিয়ে ফেসবুকে বিরূপ মন্তব্য করায় লালমনিরহাটের তালুক শাখাতী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পবিত্র কুমার রায় (৫০) কে গ্রেফতার পুর্বক জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে। এ ঘটনায় লালমনিরহাট জেলা জুড়ে মুসলিম সম্প্রদায়ের মধ্যে উত্তোজনার সৃষ্টি হয়েছে।;

‘শনিবার (২৪ জুলাই) সকাল সাড়ে ১১টার দিকে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেল হাজতে প্রেরন করার বিষয়টি নিশ্চিত করেন কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আরজু মো. সাজ্জাদ হোসেন। এর আগে শুক্রবার জুমার নামাজের পর ওই শিক্ষককে গ্রেফতারের দাবীতে উপজেলার তালুক শাখাতী এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল করেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। পরে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ ওই শিক্ষকে গ্রেফতারের আশ্বাস দিলে ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা মিছিল ও সমাবেশ বন্ধ করেন। পরে কালীগঞ্জ থানা পুলিশ শুক্রবার সন্ধ্যায় অভিযান চালিয়ে প্রধান শিক্ষক পবিত্র কুমার রায়কে গ্রেফতার করেন এবং জেলা গোয়েন্দা পুলিশ হেফাজতে তাকে রাখা হয়। আটক প্রধান শিক্ষক পবিত্র কুমার রায় উপজেলার মদাতী ইউনিয়নের ৩নং ওয়ার্ডের তালুক শাখাতী কুমারটারী গ্রামের মৃত্যু উপিন চন্দ্র রায়ের ছেলে।;

জানা গেছে, ‘কালীগঞ্জ উপজেলার তালুক শাখাতী উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক পবিত্র কুমার রায় তার নিজস্ব সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম (ফেসবুক) আইডিতে গত (২১ জুলাই) একটি স্ট্যাটাস দিয়ে লিখেন, নির্বোধের আর্তনাদ’ পশু হত্যা করে ওরা কিভাবে উত্তম হতে পারে? উত্তম প্রানীরাই আজ পৃথিবী ধ্বংসের মুল কারন ওরাই দুষণ করেছে, ধ্বংস করেছে আর ভাবছে ওরাই উত্তম)। বিষয়টি ফেসবুকে ভাইরাল হওয়ার পর পোস্টটি তিনি রিমুভ করে দিয়ে ক্ষমা চেয়ে আরও একটি পোস্ট দেন। এ নিয়ে স্থানীয়দের ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হলে প্রশাসনের সুদৃষ্টি কামনা করেন ধর্মপ্রাণ মুসলমানরা। এ বিষয়ে কালীগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আরজু মো. সাজ্জাদ হোসেন বলেন, ফেসবুকে ধর্মীয় অনুভূতিতে আঘাত দেয়ার অপরাধে ওই প্রধান শিক্ষককে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা দায়ের হয়েছে, মামলা হওয়ার পর দুপুরে তাকে জেল হাজতে প্রেরন করা হয়েছে।;