গোবিন্দগঞ্জে পৃথক অভিযানে গ্রেফতার ৩

25

গোবিন্দগঞ্জ (গাইবান্ধা) প্রতিনিধি: গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে পৃথক অভিযানে সাজাপ্রাপ্ত আসামীসহ মাদক পাচারকারী ৩ জনকে গ্রেফতার করেছে থানা পুলিশ।


গতকাল বুধবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দিবাগত রাত ১টা ৪৫ মিনিটে বৈরাগীহাট তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ ইন্সপেক্টর মিলন চ্যাটার্জি ও এএসআই তরুণ দত্তের নেতৃত্বে একটি টিম অভিযান চালিয়ে কাঁটাবাড়ি গ্রাম হতে ২০ বছর যাবত পলাতক আসামী বিল্লাল হোসেনকে (৫৫) গ্রেফতার করে। সে ওই গ্রামের মৃত মহির উদ্দিনের পুত্র এবং বিশেষ ক্ষমতা আইনের জিআর ৯৯/১৯৯৭ (মানিকগঞ্জ) মামলায় ২ বছরের সাজাপ্রাপ্ত পলাতক আসামি ছিল। মামলার রায় ঘোষণার পর থেকে সে বিভিন্ন জায়গায় ছদ্মবেশে আত্মগোপন করে বেড়াচ্ছিল।

অপরদিকে, বুধবার দিবাগত রাত সোয়া ৯টার দিকে গোবিন্দগঞ্জ থানার এসআই আকতার ও এএসআই মমিনুল ইসলামের একটি টিম পৌরসভার মাছ বাজারের পাশ থেকে মমতা বেগম (৩৬) নামের মহিলাকে শরীরে ফিটিং করা ২৩ বোতল ফেন্সিডিলসহ আটক করে। সে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার চক কোচমুড়ীর (গুচ্ছগ্রাম) মৃত মোতালেব এর কন্যা ও মৃত রফিকুল ইসলামের স্ত্রী।

এদিকে অপর এক অভিযানে রাত সাড়ে ১২টার দিকে এসআই আকতার, এএসআই মুশফিক ও মাসুদের নেতৃত্বে একটি টিম ঘোড়াঘাট-দিনাজপুর আঞ্চলিক মহাসড়কের পৌরসভার বাঁধন পেট্রোল পাম্পের সামনে নিয়মিত চেকিংয়ের সময় দিনাজপুর থেকে ছেড়ে আসা ঢাকাগামী এসআর পরিবহনের একটি বাসে অভিযান চালিয়ে রজনী আক্তার (২৬) নামের এক মহিলাকে আটক করে। এসময় তাঁর সাথে স্কুল ব্যাগ তল্লাশি করে ভারতীয় আমদানি নিষিদ্ধ ৩০ বোতল ফেন্সিডিল উদ্ধার করা হয়।

বিষয়গুলো নিশ্চিত করে গোবিন্দগঞ্জ থানার অফিসার ইনচার্জ একেএম মেহেদী হাসান জানান, দুটি ঘটনায় উদ্ধারকৃত ৫৩ বোতল ফেন্সিডিলের আনুমানিক মূল্য ৩১ হাজার ৫শ’ টাকা। আটককৃত আসামীদের বিরুদ্ধে থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে পৃথক দুটি মামলা রুজু করা হয়েছে। তাদেরকে বৃহস্পতিবার বিজ্ঞ আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।