গোল উৎসবে সবার আগে কাতার বিশ্বকাপে জার্মানি

24

স্পোর্টস ডেস্ক: প্রথম দল হিসেবে বাছাই পর্ব পেরিয়ে কাতার বিশ্বকাপের মূলপর্বে জায়গা করে নিল জার্মানি। নর্থ মেসিডোনিয়ার বিপক্ষে এরকম গোল উৎসব করে জিতেছে হানসি ফ্লিকের শিষ্যরা। তাতে দুই ম্যাচ হাতে রেখেই বিশ্বকাপে জায়গা করে নেয় চারবারের বিশ্ব চ্যাম্পিয়নরা।

সোমবার রাতে ‘জে’ গ্রুপের ম্যাচে প্রতিপক্ষের মাঠে ৪-০ গোলের জয় পেয়েছে জার্মানি। জোড়া গোল করেন টিমো ভেরনার, একটি করে কাই হার্ভাটজ ও জামাল মুসিয়ালা। তবে প্রথম দুই গোলে অবদান রাখেন টমাস মুলার।

বাছাইপর্বের প্রথম দেখায় ঘরের মাঠে নর্থ মেসেডোনিয়ার কাছে ১-২ গোলে হেরে গিয়েছিলো জার্মানি। বাছাইপর্বে এখন পর্যন্ত জার্মানির একমাত্র পরাজয় এটি। ইউরোপের শক্তিশালী দলটি সেই হারের বদলা সুদে-আসলেই নিয়েছে মেসেডোনিয়ার মাঠে গিয়ে।

ম্যাচে ৭৪ শতাংশ সময় বল দখলে রেখে গোলের জন্য মোট ২৪টি শট নেয় জার্মানরা। যার ১০টিই ছিল লক্ষ্যে। আর স্বাগতিকদের সাত শটের একটি লক্ষ্যে ছিল।

এই ম্যাচের শুরুর দিকে একের পর এক আক্রমণেও প্রতিপক্ষ গোলরক্ষকের বাধা পেরুতে পারছিল না জার্মানি। তবে বিরতির পর গোল উৎসব শুরু হয় তাদের।

৫০তম মিনিটের মাথায় টমাস মুলার বল নিয়ে ঢুকে পড়েন বক্সের মধ্যে। তাকে সামলাতে বেশ সামনে চলে আসেন মেসিডোনিয়ার গোলরক্ষক স্টোল দিমিত্রিয়েভেস্কি। তবে মুলার নিজে চেষ্টা না করে বল বাড়িয়ে দেন কাই হার্ভেটজকে। নিশ্চিন্তমনে ফাঁকা পোস্টে বল জড়ান হার্ভেটজ।

এরপর তিন মিনিটের মধ্যে দুবার জালে বল পাঠিয়ে স্কোরলাইন ৩-০ করেন ভেরনার। ৭০তম মিনিটে মুলার বক্সের মধ্যে বল দেন ভেরনারকে। তখন তার সামনে কেবল গোলরক্ষক। ডান পায়ের জোরালো শটে বল জালে পাঠান চেলসি ফরোয়ার্ড।

তার পরের গোলটি ছিল চমৎকার। ৭৩তম মিনিটে বক্সের মধ্যে তাকে বল দেন ফ্লোরিয়ান। বল পেয়ে ১৫ গজ দূর থেকে বাকানো শটে লক্ষ্য ভেদ করেন ভেরনার।

৮৩তম মিনিটে ব্যবধান আরও বাড়িয়ে বড় জয় নিশ্চিত করেন ভেরনারের বদলি নামা মুসিয়ালা। করিম আদেইয়েমির পাস ধরে ডি-বক্সে ঢুকে গোলটি করেন বায়ার্নের এই অ্যাটাকিং মিডফিল্ডার। এটা ছিল জাতীয় দলের হয়ে তার প্রথম গোল।

৮ ম্যাচ থেকে ২১ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে জার্মানি। সমান ম্যাচ থেকে ১৩ পয়েন্ট পেয়ে দ্বিতীয় স্থানে রোমানিয়া। তৃতীয় স্থানে থাকা নর্থ মেসিডোনিয়ার সংগ্রহ ১২ পয়েন্ট।

ইউরোপ অঞ্চলের বাছাইপর্ব থেকে পয়েন্ট টেবিলের শীর্ষে থাকা ১০টি দল সরাসরি বিশ্বকাপে খেলার সুযোগ পাবে। আরও ১০টি দল সুযোগ পাবে প্লে-অফ খেলার।