চকরিয়ায় নৌকার কর্মীর উপর হামলা; স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থীসহ ১৭ জনের বিরুদ্ধে মামলা

21
স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী জিয়াবুল হক, ছবি : জনবাণী

চকরিয়া প্রতিনিধি: কক্সবাজারের চকরিয়া পৌরসভা নির্বাচনকে কেন্দ্র করে নৌকা প্রার্থীর কর্মীর উপর হামলার ঘটনায় আওয়ামী লীগের বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী জিয়াবুল হকের বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

সোমবার রাতে বর্তমান মেয়র ও নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আলমগীর চৌধুরী বাদী হয়ে ১৭জনকে আসামী করে থানায় এই মামলা দায়ের করেন।মামলায় প্রধান আসামী করা হয়েছে বিদ্রোহী প্রার্থী কক্সবাজার-১ আসনের সংসদ সদস্য জাফর আলমের ভাতিজা জিয়াবুল হককে।

মামলার এজাহারে বলা হয়েছে, সোমবার দুপুর দেড়টার দিকে পৌরসভার ৯ নম্বর ওয়ার্ড রেইন কমিউনিটি সেন্টারের সামনে নৌকা প্রতিকের প্রার্থী আলমগীর চৌধুরীর তিন কর্মী প্রচারণা চালাতে যায়। এসময় বিদ্রোহী প্রার্থী ও তার লোকজন উপজেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি আতাউল হক সবুজ চৌধুরী, রমেশ খান ও রাজিব খানের উপর জিয়াবুলের নেতৃত্বে তার সমর্থকরা হামলা চালায়। মারধরের পাশাপাশি বৈদ্যুতিক শকও দেয়া হয় তাদের। বাদী আলমগীর চৌধুরী আরো দাবী করেন, বিদ্রোহী মেয়র প্রার্থী জিয়াবুল হক ও সমর্থকরা নৌকার কর্মী ও সমর্থকদের নানাভাবে হুমকি প্রদর্শন করছেন। বিভিন্ন স্থানে নৌকার কর্মীদের হামলা ও ভোট কেন্দ্রে না যেতেও হুমকি দিচ্ছেন।

চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) শাকের মোহাম্মদ যুবায়ের বলেন, ১৭ জনকে আসামী করে থানায় মামলা হয়েছে। আসামীদের ধরতে পুলিশের টিম মাঠে কাজ করছে।

এদিকে হামলার ঘটনায় সোমবার বিকালে নৌকার প্রার্থী আলমগীর চৌধুরীর প্রধান নির্বাচনী কার্যালয়ে এক প্রতিবাদ সমাবেশ করা হয়। সমাবেশে আওয়ামীলীগের উপজেলা পর্যায়ের নেতারা বক্তব্য রাখেন। স্থানীয় ভোটাররা মনে করেন, নির্বাচনের আগে এ ধরনের সহিংসতা ভোটারদের মনে ভীতি তৈরী করছে।