চাঁদে আগের থেকে বেশি পানি রয়েছে : নাসা

22

অনলাইন ডেস্ক : আগে ধারনা করা হয়েছিল, চাঁদের চেয়ে বেশি পানি থাকার রাসায়নিক প্রমাণ পেয়েছেন নাসার বিজ্ঞানীরা।সূর্যের আলো চাঁদের যে অংশে সরাসরি পড়ে, সে অংশে পানির অণুর সন্ধান পাওয়া গেছে।ফলে চাঁদে একসময় স্থায়ীভাবে বসবাস করা সম্ভব নাসার এ উদঘাটন এমন ধারণা প্রতিষ্ঠা করতে পারে।

এর আগে চাঁদের উত্তর ও দক্ষিণ মেরুর সবচেয়ে অন্ধকার এবং শীতলতম অংশে বরফের সন্ধান পাওয়া গিয়েছিল। কিন্তু ত্রবার অনুসন্ধান করে বলছে, চাঁদের শুধু হিমশীতল ও অন্ধকার অংশেই নয়, সম্পূর্ণ পৃষ্ঠেই পানি থাকতে পারে।

২৬ অক্টোবর, নাসা সদরদপ্তরে জ্যোতির্বিজ্ঞান বিভাগের পরিচালক পল হার্টজ বলেন, এটি দারুণ ব্যাপার কারণ আমরা ভেবেছিলাম চাঁদের যে পৃষ্ঠে সূর্যের আলো পড়ে, সেখানে পানি থাকার কোন সম্ভব নয়।

ঐদিন ‘নেচার অ্যাস্ট্রোনমি’ সাময়িকীতে এ বিষয়ে দুটি গবেষণা নিবন্ধ প্রকাশিত হয়।

হাওয়াই ইনস্টিটিউট অব জিওফিজিকস অ্যান্ড প্ল্যানেটোলজির গবেষক ও গবেষণা প্রবন্ধের সহলেখক ক্যাসি হনিবল বলেন, এটি তরল পানি নয়। অণুগুলো এত দূরে দূরে ছড়ানো যে সেগুলো বরফ বা তরল পানি গঠন করেনি।

নাসার লক্ষ্য, ২০২৪ সালে চাঁদে নভোচারী পাঠানো। সেজন্য এ উদঘাটনের গুরুত্বপূর্ণ তাৎপর্য রয়েছে। হার্টজ বলেন,নভোচারিদের মহাকাশ অভিজানের সময় চাঁদের এ পানি প্রয়োজনে আসতে পারে। এছাড়া, মহাকাশে আরও দূরে যেমন মঙ্গলে অভিযানের সময় এ পানির অক্সিজেন অণু রকেটের জ্বালানি হিসেবেও ব্যবহার করা যেতে পারে।