চাষীদের টাকা বিতরণে অনিয়ম, তথ্য চাওয়ায় ব্যাংক কর্মকর্তার হুমকি

77

মোঃ কামরুল ইসলাম কামু, পঞ্চগড়: প্রান্তিক চাষিদের গমের ও ধানের টাকা বিতরনে অনিয়মের তথ্য চাইতে গেলে পঞ্চগড়ের রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক তেঁতুলিয়া উপজেলার তিরনই হাট শাখার এক কর্মককর্তা সাংবাদিকদের নানা ভাবে হেনস্থা ও হুমকি প্রদান করেছেন । সাংবাদিকদের যথাযথ কর্তৃপক্ষের কাছে ওই কর্মকর্তার শাস্তি দাবি করে ব্যবস্থাপক বরাবরে লিখিত আবেদন করেছেন।

জানা গেছে, বৃহস্পতিবার দুপুরে বিভিন্ন সংবাদপত্র ও সংবাদ ভিত্তিক বেসরকারি টেলিভিশন চ্যানেলে কর্মরত সাংবাদিকেরা ওই ব্যাংকে দুর্নীতি ও অনিয়মের তথ্য চাইতে ম্যানেজারের ধীমান রায়ের সাথে কথা বলছিলেন।

এসময় ব্যাংক কর্মকর্তা রোকনুজ্জামান ম্যানেজারের কক্ষে প্রবেশ করে ইংরেজীতে হু আর ইউ বলে সম্বোধন শুরু করেন। পরে সে নিজেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের সাবেক ছাত্র নেতা দাবি করে বলেন তথ্য চাওয়ার আপনারা কে ? আপনারা তো কার্ড দেখিয়ে সাংবাদিকতা করেন । বেতন পান না। আপনারা এখানে প্রবেশ করার আগে যথাযথ কর্তৃপক্ষের অনুমতি নিয়েছেন ? একসময় তিনি উত্তেজিত হয়ে টেবিল থাপরিয়ে বলেন অশ্লীল ভাষা প্রয়োগ করেন । তাকে ম্যানেজার বার বার নিবৃত্ত করতে চাইলেও তিনি চিৎকার করতে থাকেন।

এসময় সাংবাদিকরা বলেন আমরা নির্দিষ্ট একটি অভিযোগের ভিত্তিতে তথ্য চাইতে এসেছি। তথ্য না দিলে আমরা তথ্য ফরমে আবেদন করতে পারি। কিন্তু আমাদের সাথে আপনারা বিরুপ ব্যবহার করতে পারেন না। এ কথার প্রতি উত্তরে ওই কমকর্তা বলেন আপনারা তো ১৫ শ টাকাও বেতন পান না। অনেক সাংবাদিক গ্রাজুয়েটও করেনি। আামি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ে ৮ বছর সাংবাদিকতা করেছি। আমাকে সাংবাদিকতা শেখাবেন না। একপর্যায়ে তিনি আরও উত্তেজিত হয়ে উঠেন। পরে ব্যাংকের ম্যানেজার তাকে কক্ষ ত্যাগ করতে বললে তিনি কক্ষ ত্যাগ করে অন্যত্র চলে যান।

গণমাধ্যম কর্মীরা জানান, ওই কর্মকর্তার আচরণে আমরা হতভম্ব ।

ঘটনার তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে তেতুলিয়া জর্নালিষ্ট ক্লাব সহ সাংবাদিক, সাংস্কৃতিক ও সামাজিক বেশ কয়েকটি সংগঠন। তেতুলিয়া জর্নালিষ্ট ক্লাবের আহ্বায়ক আশরাফুল ইসলাম বলেন ঘটনাটি দুঃখজনক । আমরা ওই কর্মকর্তার দ্রত অপসারন সহ বিচার দাবি করছি। ড্রাগ ফ্রি বাংলাদেশের নির্বাহী পরিচালক আতিকুজ্জামান শাকিল বলেন ওই কর্মকর্তার আচরণ সন্দেহজনক । তার আচরণ সুস্থ মস্তিস্কের নয়। দীর্ঘ দিনের সাংবাদিকতার জীবনে এরকম আচরণ দেখিনি।

ম্যানেজার বিধান রায় জানান, ঘটনাটি অনাকাংখিত এবং দুঃখজনক । রাজশাহী কৃষি উন্নয়ন ব্যাংক পঞ্চগড় জেলার প্রধান শাখার ব্যবস্থাপক শফিউল হক জানান মুঠোফোনে ঘটনাটি শুনেছি । আগামী রোববার এ ব্যাপারে তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে ।