লকডাউনে রূপচর্চা, সুন্দর থাকার উপায়

3

অনলাইন ডেস্ক: করোনাভাইরাস সংক্রমণ আবারও বেড়ে চলেছে। শুরু হয়েছে লকডাউন। এমন অবস্থায় একান্ত প্রয়োজন না হলে বাড়ির বাইরে না যাওয়াই উত্তম। সংক্রমণ থেকে বাঁচতে সচেতন থাকার বিকল্প নেই। নতুন এই পরিস্থিতির সঙ্গে মানিয়ে চলতে হবে। নিজেকে সুস্থ ও সুন্দর রাখলে ভালো থাকবে মনও। তাই সংক্রমণ নিয়ে দুশ্চিন্তা না করে নিজের যত্ন নিন। যে কাজগুলো করলে মন ভালো থাকে, তাই করার চেষ্টা করুন। আয়নায় নিজেকে পরিপাটি দেখতে চান নিশ্চয়ই? জেনে নিন এসময় ঘরে বসে নিজের যত্ন নেওয়ার কিছু উপায়-

ভালো থাকুক ত্বক
লকডাউনে দুশ্চিন্তা না করতে চাইলেও নানা ধরনের দুশ্চিন্তা এসে ভর করে। চারদিকে সংক্রমণ ও মৃত্যুর ঘটনা যথেষ্ট উদ্বেগজনক। এমন অবস্থায় দুশ্চিন্তা হওয়াটাই স্বাভাবিক। আর তার ছাপ পড়ে আমাদের চেহারায়। দুশ্চিন্তার কারণে খাবারের দিকেও মনোযোগী থাকা সম্ভব হয় না। হাতের কাছে যা পাওয়া যাচ্ছে তাই খেয়ে ফেলা কিংবা খাবারের প্রতি একেবারেই উদাসীন থাকার কারণে ত্বক হারাচ্ছে উজ্জ্বলতা। পানি পান করা হচ্ছে না ঠিকভাবে। ফলে ত্বক রুক্ষ হয়ে যাচ্ছে। তাই এসময় ইতিবাচক থাকার চেষ্টা করুন। সচেতন থাকুন এবং নিজেকে ভালো রাখুন। পার্লার বন্ধ, তাই বাড়িতেই রূপচর্চা করা যেতে পারে। বাড়িতে থাকা নানা ভেষজ উপাদান দিয়ে ত্বকের যত্ন নেওয়া সম্ভব। ত্বকের ধরন অনুযায়ী সেসব ব্যবহার করতে পারেন।

চুল রাখুন সুন্দর
লকডাউনে ত্বকের মতোই অবহেলার শিকার হতে পারে চুলও। তবে বাড়িতে থাকার এই সময়টুকু কাজে লাগাতে পারেন। রুক্ষ, নিষ্প্রাণ চুল আপনার মন আরও খারাপ করে দেবে। তাই চুলের যত্ন নিন। বাড়িতে থাকা নানা উপকারী উপাদান যেমন ডিম, কলা, লেবু, দই, নারিকেল তেল, মধু ইত্যাদি দিয়ে করতে পারেন চুলের পরিচর্যা। লম্বা চুলের পরিচর্যা করা সম্ভব না হলে চুল ছোট করে নিন।

হাত ও পায়ের যত্ন
করোনা আতঙ্কে বারবার হাত ধোয়ার কারণে রুক্ষ হয়ে যাচ্ছে হাতের চামড়া। এমন অবস্থায় হাতের প্রতি যত্নশীল না হয়ে উপায় নেই। হাত ও নখ পরিষ্কার রাখতে হবে। সেইসঙ্গে যত্ন নিন পায়েরও। শ্যাম্পু, নারিকেল তেল, হালকা গরম পানি ও সামান্য লবণ দিয়ে বাড়িতে বসেই ম্যানিকিওর ও প্যাডিকিওর করা সম্ভব। সংক্রমণের ভয়ে নিজের অযত্ন করা ঠিক নয়। তাই পরিচ্ছন্ন ও পরিপাটি থাকুন।

প্রতিদিনের কাজ
মন চাইলেই রেস্টুরেন্টে যাওয়া যাবে না এখন। এই সুযোগে স্বাস্থ্যকর খাবার খাওয়ার অভ্যাস করুন। বাড়িতে অল্প খরচে স্বাস্থ্যকর খাবার রান্না করুন। এতে ওজন থাকবে নিয়ন্ত্রণে, অসুখের ঝুঁকিও কমবে। অতিরিক্ত তেল-মশলা বাদ দিলে ত্বক ভালো থাকবে। খাবারের তালিকায় রাখুন প্রচুর সবজি ও ফল। পর্যাপ্ত পানি পান করুন। খাবারের পাশাপাশি নজর দিন শরীরচর্চার দিকেও। এতে শুয়ে-বসে থাকার কারণে ওজন বাড়ার ভয় থাকবে না। ঘুমের প্রতি উদাসীন হলে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা দুর্বল হয়ে পড়ে। তাই প্রতিদিন নিয়ম মেনে ঘুমান। প্রাপ্তবয়স্ক যেকোনো ব্যক্তির জন্য প্রতিদিন অন্তত সাত ঘণ্টা ঘুম জরুরি। ঘুম ভালো হলে ভালো থাকবে শরীর ও মন।