শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা আপার প্রতি আমি সত্যিই কৃতজ্ঞ, টুঙ্গিপাড়ায়: হাবিবুর রহমান হাবিব এমপি

35
গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে আ.লীগ প্রার্থী হাবিবুর রহমান হাবিব, ছবি : জনবাণী

গোপালগঞ্জ প্রতিনিধি: সিলেট-৩ আসনের উপনির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের সভাপতি, বঙ্গবন্ধুকন্যা, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও তার ছোট বোন শেখ রেহানা আপা আমাকে পছন্দ করে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগের মনোনয়ন দিয়ে নৌকা প্রতীকে নির্বাচন করার সুযোগ করে দিয়েছেন বলেই আজ আমি সংসদ সদস্য হিসেবে নির্বাচিত হতে পেরেছি।

সোমবার (১৩ সেপ্টেম্বর) বিকালে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে নেতাকর্মীদের সাথে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে গণমাধ্যমে এসব কথা বলেন তিনি।

তিনি আরো বলেন, আমি মহান আল্লাহ পাকের দরবারে শুকরিয়া আদায় করে আপনাদের (গণমাধ্যমে) মাধ্যমে শেখ হাসিনা ও শেখ রেহানা আপার প্রতি কৃতজ্ঞতা প্রকাশ করছি। সংসদ সদস্য হিসেবে নয়, সেবক হিসেবে আমি যেন আমার ওপর অর্পিত দায়িত্ব যথাযথভাবে পালন করতে পারি সে জন্য সকলের সার্বিক সহযোগিতা চাইলেন সিলেট-৩ (দক্ষিণ সুরমা, ফেঞ্চুগঞ্জ ও বালাগঞ্জ) আসনের নবনির্বাচিত মাননীয় সংসদ সদস্য হাবিবুর রহমান হাবিব।

এর আগে পবিত্র ফাতেহা ও দুরুদ পাঠ শেষে তারা ‘৭৫-এর ১৫ আগস্ট বঙ্গবন্ধু ও তাঁর পরিবারে নিহত সকল শহীদের রুহের মাগফিরাত কামনায়, বঙ্গবন্ধুর সুযোগ্য কন্যা, গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলাদেশ সরকারের মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং তার ছোট বোন শেখ রেহানা’র সুস্বাস্থ্য ও দীর্ঘায়ু কামনা করে বিশেষ দোয়া ও মোনাজাত করেন।

এ সময় স্বাস্থ্যবিধি মেনে টুঙ্গিপাড়া পৌর মেয়র শেখ তোজাম্মেল হক টুটুল, ব্যবসায়ী মুন ভূঁইয়া, তরিকুল ইসলাম ভূঁইয়া, বাংলাদেশ আওয়ামী যুবলীগের সদস্য মো. ইমরান, সিলেট জেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এড. নাসির উদ্দিন খান, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক হাজী ফারুক আহমেদ, উপ-দপ্তর সম্পাদক মো. মজির উদ্দিন, উপ-প্রচার সম্পাদক মতিউর রহমান, জেলা আওয়ামী লীগের সদস্য এড. বদরুল ইসলাম জাহাঙ্গীর, দক্ষিণ সুরমা উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা সাইফুল আলম, সাধারণ সম্পাদক এড.শামীম আহমেদ, ফেঞ্চুগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি শওকত আলী, বালাগঞ্জ উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি মুস্তাকুর রহমান মফুর, সাধারণ সম্পাদক আনহার মিয়া, বাংলাদেশ ভেটেরিনারি কাউন্সিলের সদস্য ডা. মো. মুহিবুল ইসলাম সহ সিলেট জেলা আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের দুই শতাধিক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন।

পরে হাবিবুর রহমান হাবিব এমপি বঙ্গবন্ধু ভবনে সংরক্ষিত পরিদর্শন বইয়ে তিনি মন্তব্য লিখে স্বাক্ষর করেন।