দৈনিক জনবাণী | বাংলা নিউজ পেপার | Daily Janobani | Bangla News Paper
মঙ্গলবার, ৯ আগস্ট ২০২২

মহানায়কের জীবনযুদ্ধের কথা নিয়ে আসছে গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’


জনবাণী ডেস্ক
প্রকাশ: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৯:২৩ পূর্বাহ্ন

সুপারম্যান, স্পাইডারম্যান, ব্যাটম্যান কিংবা আয়রনম্যান- বিশ্বজুড়ে শিশুদের অতিপ্রিয় এসব অতিমানব চরিত্র। কাল্পনিক এসব চরিত্রের চেয়েও কঠিন যাত্রায় সফল এক মহানায়ক আছেন বাংলাতেই। বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের চেয়ে বাস্তবের সুপারহিরো জাতির কাছে আর কেইবা হতে পারেন? কিন্তু আজকের শিশুরা কতটা জানে একজন মুজিবের জীবনভ্রমণ? গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’ এর মধ্য দিয়ে সেটাই তুলে আনার চেষ্টা করেছে সিআরআই। আর এই গ্রাফিক নভেল দেখে স্বাধীনতার মহানায়কের জন্ম থেকে ভাষা আন্দোলনে ভূমিকা পর্যন্ত মোট দশটি খণ্ডে তার ভূমিকা জানবে এই প্রজন্ম, আগামী প্রজন্ম, প্রজন্ম থেকে প্রজন্ম।

যিনি মৌন মলিনমুখে জাগালেন ভাষা- কেমন করে তা সম্ভব হয়েছিল? মৃত্যঞ্জয়ী সেই মানুষটি কতটা আকুল হয়ে অগণিত মানুষের স্বপ্নপূরণ করেছিলেন? একজন ‘মুজিব’র জীবনযাত্রার পুরোটাই যেনো বাংলাদেশের গল্প। আর এই গল্পই উঠে এসেছে গ্রাফিক নভেল সিরিজের ১০টি পর্বে। শেষ পর্ব ‘মুক্তির পথে’ থাকছে তরুণ মুজিবের মুক্তির সংগ্রাম। পশ্চিমাদের জেল-জুলুমের বিরুদ্ধে বুক চিতিয়ে দাঁড়ানোর অসীম সাহসের কথা।



দারুণ সব গল্প ছোটদের কাছে তুলে ধরতে গত সাত বছর ধরে কাজ করে যাচ্ছেন এক দল কার্টুনিস্ট। ‘অসমাপ্ত আত্মজীবনী’ অবলম্বনে সেই ঘটনা ফুটিয়ে তোলার কাজটা মোটেও সহজ ছিল না। কার্টুনিস্ট সৈয়দ রাশাদ ইমাম তন্ময় বলেন, আমরা যে গল্পটা বলছি, সেটা বঙ্গবন্ধুর জন্ম থেকে ১৯৫২ পর্যন্ত। তখনও তিনি জাতির পিতা হয়ে ওঠেননি। তিনি তখন মুজিব ছিলেন আর তার আশেপাশের মানুষেরা তাকে ‘মুজিব ভাই’ বলে ডাকতো। তখন আমরা অনুধাবন করতে পারলাম যে, আমরা একজন মানুষের গল্প বলছি। আমরা এমন একজন সংগ্রামী মানুষের গল্প তুলে ধরার চেষ্টা করছি, যিনি দেশ ও দশের কষ্টটা বুঝতে পেরেছিলেন।

হোসেন শহীদ সোহরাওয়ার্দীর ঘনিষ্ঠ সান্নিধ্য আর ইতিহাসের বাঁক ঘোরানো মুজিবের রাজনৈতিক ভ্রমণের শুরুরও দেখা মিলবে এই গ্রাফিক নভেলে। কাটুনিস্টদের কাছে সব থেকে বড় চ্যালেঞ্জ ছিল অন্য একটি বিষয়। কারণ, পুরো বিষয়টি সম্পাদনা করেছেন বঙ্গবন্ধুর দুই কন্যা। সৈয়দ রাশাদ ইমাম তন্ময় জানান, তিনি যাদের ছবি এঁকেছেন তারা কেউ এখন আর বেঁচে নেই। তাদের স্বাস্থ্য তাই কিছুটা ভালো এঁকেছেন, কারণ তাদের কাউকেই তিনি দেখেননি। প্রধানমন্ত্রী সম্পাদনা করে জানিয়েছেন যে, মানুষ তখন এত স্বাস্থ্যবান ছিলেন না। আরও রোগা ও শুকনো ছিলেন তখনকার মানুষ।



সিরিজে দেখা মিলবে দুর্ভিক্ষের সময় বঙ্গবন্ধুর ভূমিকা। দূরন্ত মুজিব বাবার সাথে ফুটবল ম্যাচে কি জিততে পেরেছিলেন, সেই প্রশ্নের জবাবও পাওয়া যাবে সেখানে। সৈয়দ রাশাদ ইমাম তন্ময় বলেন, সব সুপারহিরোর কিন্তু গোপন পরিচয় থাকে না। এটার প্রমাণ আমাদের বঙ্গবন্ধু। তার জীবনটা এতটাই অ্যাডভেঞ্চারাস যে, তিনি আমাদের ছদ্মনাম বিহীন এক সুপারহিরো।

আগামী ১৫ ফেব্রুয়ারি শুরু হওয়া অমর একুশে বইমেলায় নভেলটির প্রকাশিত সব সংখ্যা পাওয়া যাবে সিআরআইয়ের স্টলে। সংগ্রহ করা যাবে অনলাইনেও। আপাতত মোট ১০ খণ্ডে সমাপ্ত হচ্ছে এই গ্রাফিক নভেল ‘মুজিব’।

এসএ/

আরও পড়ুন