দৈনিক জনবাণী | বাংলা নিউজ পেপার | Daily Janobani | Bangla News Paper
রবিবার, ২৬ জুন ২০২২

বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন পূরণে সবাইকে আরো বেশি বেশি করে কাজ করতে হবে: বিএসএমএমইউ উপাচার্য


নিজস্ব প্রতিবেদক
প্রকাশ: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২২, ০৪:৫০ অপরাহ্ন

বঙ্গবন্ধুর জন্ম না হলে বাংলাদেশ সৃষ্টি হতো না। আমরা আজকের অবস্থানে কেউ থাকতাম না। জাতির পিতার নামে প্রতিষ্ঠিত এই বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন ছিল দেশের রোগীরা যাতে দেশেই সেবা নিতে পারেন, চিকিৎসার জন্য দেশের বাইরে যেতে না হয়। বঙ্গবন্ধু কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রত্যাশাও তাই। মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর সেই প্রত্যাশা বাস্তবায়নে সবাইকে আরো বেশি বেশি করে কাজ করতে হবে। যাদের চাকুরী এখনো নিয়মিত করা যায়নি তাদেরও চাকুরি নিয়মিত করা হবে। তবে সবাইকে কাজের মাধ্যমে সঠিক যোগ্যতার প্রমাণ দিতে হবে। 

বুধবার (১৬ ফেব্রুয়ারি) বিকাল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ের সদ্য নিয়োগপ্রাপ্ত তৃতীয় ও চতুর্থ শ্রেণীর কর্মচারীদের পক্ষ থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ডা. মোঃ শারফুদ্দিন আহমেদকে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে উপাচার্য এসব কথা বলেন।  

উপাচার্য আরো বলেন, আমাদেরকে অবশ্যই বঙ্গবন্ধুর আদর্শকে ধারণ করে চলতে হবে। যারা বঙ্গবন্ধুর আদর্শে বিশ্বাস করে না তাদের বিষয়ে সতর্ক থাকতে হবে। মাননীয় উপাচার্য বলেন, বর্তমান প্রশাসন দায়িত্ব নেওয়ার পর বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়কে নিয়ে রোগীদের প্রত্যাশা আরো বৃদ্ধি পেয়েছে। অতীতের যেকোনো সময়ের তুলনায় বর্তমানে ভিআইপি রোগীদের সেবা গ্রহণের প্রবণতা বৃদ্ধি পেয়েছে। প্রতিদিন বহির্বিভাগে প্রায় ৯ হাজার রোগী সেবা নিচ্ছেন। বর্তমানে রোগীদের ভোগান্তি দূর হয়েছে। আর একটা কথা অবশ্যই মনে রাখতে হবে, আমরা কেউ যেনো রোগীদের সাথে কোনোরকম খারাপ আচরণ না করি। 

দ্রুততম সময়ের মধ্যে তাদের চাকুরি নিয়মিতকরণ করায় উপাচার্যকে এই সংবর্ধনা দেওয়া হয়েছে। বিকাল ৩টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের এ ও বি ব্লকের মধ্যবর্তীস্থল বটতলায় আয়োজিত এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান সঞ্চালনা করেন সহকারী পরিচালক মোঃ মোস্তাফিজুর রহমান জুয়েল। 

বক্তব্য রাখেন ৩য় শ্রেণীর কর্মচারী মোঃ জায়েদুল হক, ৪র্থ শ্রেণীর কর্মচারী মোঃ লোকমান হোসেন, মোঃ জাকির প্রমুখ। সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে জানানো হয় তৃতীয় ও ৪র্থ শ্রেণীর প্রায় ৯ শত কর্মচারীর চাকুরী নিয়মিত করা হয়েছে। এরফলে এই বিশ্ববিদ্যালয়ে কর্মরত কর্মচারীদের দীর্ঘদিনের প্রত্যাশা পূরণ হয়েছে। চাকুরী নিয়মিত করায় বিশ্ববিদ্যালয়ে এক আনন্দমুখর পরিবেশের সৃষ্টি হয়েছে এবং কর্মচারীদের মধ্যে ব্যাপক উৎসাহ উদ্দীপনার সৃষ্টি হয়েছে। কর্মচারীদের চাকুরী নিয়মিত করায় উপাচার্যের প্রতি কর্মচারীবৃন্দ কতৃজ্ঞতা প্রকাশ করেন এবং উপাচার্য ও তাঁর পরিবারবর্গের সদস্যদের জন্য দোয়া কামনা করেন।   

এসএ/

আরও পড়ুন