দৈনিক জনবাণী | বাংলা নিউজ পেপার | Daily Janobani | Bangla News Paper
বৃহঃস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২

ফিরছেন সৌম্য, এশিয়া কাপ থেকে বাদ লিটন-সোহান-ইয়াসির!


ক্রীড়া ডেস্ক
প্রকাশ: ১২ আগস্ট ২০২২, ০৫:৪২ অপরাহ্ন

এশিয়ার শ্রেষ্ঠত্বের লড়াইয়ের আসন্ন আসর থেকে ছিটকে গেলেন লিটন দাস, ইয়াসির আলী ও নুরুল হাসান সোহান। অবশ্য এশিয়া কাপে খেলা নিয়ে শঙ্কা ছিল আগে থেকেই। সেই শঙ্কাই এখন বাস্তবতা।

বিষয়টি বৃহস্পতিবার (১১ আগস্ট) বিকেলেই নিশ্চিত করেন বিসিবি সভাপতি নাজমুল হাসান পাপন।

তবে এই তিন জনের বদলি হিসেবে কে কে আসছেন- এটাই এখন আলোচনার তুঙ্গে। এরই মধ্যে বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে সৌম্য সরকারের নাম। সঙ্গে শোনা যাচ্ছে সাব্বির রহমানের কথাও।

চোটের কারণে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সর্বশেষ টি-টোয়েন্টি সিরিজ চলাকালীন দেশে ফেরত আসেন সোহান। চিকিৎসকের ছুরি-কাঁচির নিচে বসতে কিছুদিন আগে বিসিবির তত্ত্বাবধানে গিয়েছিলেন সিঙ্গাপুর। সেখানে সফল অস্ত্রোপচার হলেও এখনই মাঠের ফেরার অবস্থায় নেই খুলনার এই ক্রিকেটার। পুরোপুরি সুস্থ হতে আরও কিছুদিন ক্রিকেট থেকে দূরে থাকতে হবে উইকেটকিপার ব্যাটারকে।

ইনজুরির কারণে জিম্বাবুয়ে সফরে যাওয়া হয়নি ইয়াসির আলীরও। মেরুদণ্ডের হাড়ের সমস্যায় ভুগছেন চট্টগ্রামের এই ক্রিকেটার। বিসিবির মেডিকেল বিভাগ থেকে জানানো হয়েছে, লম্বা সময় ক্রিকেটের বাইরে থাকতে হবে মিডল অর্ডার এই ব্যাটারকে। পুনর্বাসন শেষে জানা যাবে, ঠিক কবে নাগাদ বাইশ গজে ফিরতে পারবেন তিনি।

এদিকে, জিম্বাবুয়ের বিপক্ষেই একদিনের সিরিজে ইনজুরিতে পড়েন ইনফর্ম ব্যাটার লিটন দাস। হারারে স্পোর্টস ক্লাব মাঠে অনুষ্ঠিত প্রথম একদিনের ম্যাচে বাংলাদেশকে ৫ উইকেটে হারায় স্বাগতিকরা। সেই ম্যাচে ৮১ রানে ব্যাট করার সময় হ্যামস্ট্রিংয়ে চোট পান এই উইকেটকিপার ব্যাটার। এজন্য ওয়ানডে সিরিজের বাকি দুই ম্যাচ থেকেও ছিটকে যান লিটন।

এই তিনজন ছিটকে যাওয়ায় এশিয়া কাপের দল সাজানোই কঠিন হয়ে যাবে বিসিবির নির্বাচক প্যানেলের সদস্যদের। এশিয়ান ক্রিকেট কাউন্সিল, এসিসির বেঁধে দেয়া পুনঃনির্ধারিত সময় অনুযায়ী আসন্ন টুর্নামেন্টটির জন্য স্কোয়াড দেয়ার শেষ দিন রোববার।

তবে তার আগে শনিবারই দল চূড়ান্ত করতে চায় বিসিবি। 

এদিকে, সাকিব আজ (শুক্রবার) ফিরছেন হয়তো অধিনায়ক হয়েই। এটি যেমন বড় খবর, পাশাপাশি আরও বড় খবর হচ্ছে- ইনজুরি আক্রান্ত ওই তিন জনের বদলি হিসেবে দলে আসবেন কারা?

জিম্বাবুয়ে সফর করে আসা টি-টোয়েন্টি ও ওয়ানডে বহর থেকেই এদের শূন্যস্থান পূরণ করা হবে? নাকি বাইরে থেকে কাউকে নেওয়া হবে? তা নিয়ে জল্পনা কল্পনার শেষ নেই। এরই মধ্যে সৌম্য সরকারের নাম বাতাসে ভেসে বেড়াচ্ছে। শোনা যাচ্ছে সাব্বির রহমানের কথাও।

সত্যিই কি তারা অন্তর্ভুক্ত হবেন? এ প্রশ্নের জবাবে প্রধান নির্বাচক মিনহাজুল আবেদিন নান্নু অবশ্য নির্দিষ্ট কারও নাম উল্লেখ করেননি। তবে বলেছেন, ‘বিকল্প খুঁজতে জিম্বাবুয়ে সফরের বাইরে থেকে ক্রিকেটার নিতেই হবে।’

প্রধান নির্বাচকের কথায় পরিষ্কার, শুধু জিম্বাবুয়ে সফরে দলে থাকাদের ভেতর থেকেই বিকল্প খোঁজা হবে না। বাইরে থেকেও কারও অন্তর্ভুক্তির সম্ভাবনা রয়েছে। ধারণা করা হচ্ছে, সেখানে সৌম্যর থাকার সম্ভাবনা খুব বেশি। ওপেনিংয়ে ফর্মে থাকা লিটনের জায়গায় সৌম্যের পূর্ব অভিজ্ঞতা ও সাহসী ব্যাট চালনা বিবেচনায় আসছে। এই বাঁহাতি টপ অর্ডারের অন্তর্ভুক্তি অনেকটাই নিশ্চিত বলে জানা গেছে।

এর বাইরে শোনা গেছে, সাকিব আল হাসানের পছন্দ সাব্বির। তবে সেটা নির্বাচক ও টিম ম্যানেজমেন্টের কতটা মনঃপুত হবে, তা নিয়ে সংশয় রয়েছে। কারণ সাব্বিরের ঘরোয়া ক্রিকেটে সাম্প্রতিক সময়ে উল্লেখযোগ্য পারফরম্যান্স নেই।

এসএ/

আরও পড়ুন