দৈনিক জনবাণী | বাংলা নিউজ পেপার | Daily Janobani | Bangla News Paper
বৃহঃস্পতিবার, ৬ অক্টোবর ২০২২

চীনের চিরায়ত অভ্যাস বদলাতে ভারতের কড়া বার্তা


আন্তর্জাতিক ডেস্ক
প্রকাশ: ১২ আগস্ট ২০২২, ০৫:৫১ অপরাহ্ন

জাতিসংঘে নিযুক্ত ভারতের স্থায়ী প্রতিনিধি রুচিরা কম্বোজ মন্তব্য করেছেন, ‍“সুনির্দিষ্ট তথ্য-প্রমাণ থাকা সত্ত্বেও সন্ত্রাসবাদীদের কালো তালিকাভূক্ত করার প্রস্তাব স্থগিত করে দেওয়ার বিষয়ে চীনের যে চিরায়ত অভ্যাস, অবশ্যই তা বদলাতে হবে।”  

মঙ্গলবার (৯ আগস্ট) জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদে পাকিস্তানের কিছু সন্ত্রাসীর নামের তালিকা উত্থাপন করে ভারত। যুক্তরাষ্ট্র ওই প্রস্তাবের পক্ষে ভোট দিলেও বিপক্ষে অবস্থান নেয় বেইজিং। ফলে প্রস্তাবটি স্থগিত হওয়ার পর এমন প্রতিক্রিয়া দেন ভারতের এই প্রতিনিধি। 

জি৫নিউজের এক প্রতিবেদনে বলা হয়েছে- ‘এদিন চীনের সভাপতিত্বে হওয়া ওই সম্মেলেনে বেজিংকে কটাক্ষ করে ভারত জানিয়েছে, ‘নিরাপত্তা পরিষদের বৈঠকে প্রমাণসহ বিশ্বের কুখ্যাত সন্ত্রাসবাদীদের কালো তালিকাভুক্ত করার যে তথ্য ও প্রমাণ জমা দেওয়া হয়েছিল, তা স্থগিত করার বিষয়টি ন্যক্কারজনক। সন্ত্রাস মোকাবিলায় কোনও দ্বিমত থাকা উচিৎ নয়।’

ভারতের নব নির্বাচিত প্রতিনিধ রুচিরা কম্বোজ বলেন, “জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদকে আরও বেশি স্বচ্ছ হতে হবে। পাশাপাশি কোনও প্রস্তাব স্থগিত করা হলে তার জবাবদিহি করারও ব্যবস্থা করতে হবে।”

রুচিরা কম্বোজ বলেন, “সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে দ্বিচারিতা এবং ক্রমাগত রাজনীতিকরণ ‘নিষেধাজ্ঞা ব্যবস্থা’র বিশ্বাসযোগ্যতাকে সর্বনিম্ন পর্যায়ে নিয়ে গেছে। আমরা আশাকরি- নিরাপত্তা পরিষদের সকল সদস্য সন্ত্রাসবাদের বিরুদ্ধে ঐক্যবদ্ধ হবে।”

পাকিস্তানের প্রতি চীনের একচেটিয়া সমর্থনকে ইঙ্গিত করে তিনি আরও বলেন, “আমাদের উচিত সন্ত্রাসবাদকে প্রশয় দেওয়া থেকে বিরত থাকা। কিছু শক্তি নিজেদের সুবিধার জন্য সন্ত্রাসবাদকে মদদ দিচ্ছে, তাদের কোনওভাবেই সমর্থন করা উচিত নয়।”

উল্লেখ্য, জাতিসংঘের নিরাপত্তা পরিষদের সন্ত্রাসবাদ দমন কমিটির বর্তমান সভাপতি ভারত। সন্ত্রাসবাদ মোকাবিলায়  নিরাপত্তা পরিষদে ভারতের এই অবস্থান মূলত চীন ও পাকিস্তানের উদ্দেশে ‘কঠিন বার্তা’ বলেই মনে করছেন বিশ্লেষকরা।

এসএ/

আরও পড়ুন